পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন লাঠি নিয়ে গ্রামে নজরদারি চালানোর নির্দেশ

ag 44
দক্ষিণ দিনাজপুর , ৭ মে :পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন লাঠি নিয়ে গ্রামে নজরদারি চালানোর নির্দেশ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের।সোমবার হরিরামপুর বাসস্ট্যান্ডে নির্বাচনী প্রচারে আসেন দিলীপবাবু।সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার, জেলা পর্যবেক্ষক সঞ্জীব মিশ্র। দিলীপবাবু বলেন, “পঞ্চায়েতে ভোট লুটের চেষ্টা হবে। আমি বলে যাচ্ছি, ভারতীয় জনতা পার্টি তা মেনে নেবে না। খোলা মাঠ কখনই ছাড়বে না। সিপিআইএম, কংগ্রেস লেপিয়ে গেছে । আমরা প্রতিরোধ করব। যদি গ্রামের ভোটার না হয় তাহলে বলুন আজ তুমি গ্রামে ঢুকবে না। আজ লাঠির বাড়ি খেতে হবে। কারণ আজ ভোট আছে। এত কষ্ট করে মনোনয়ন জমা দেওয়া হয়েছে। ঠাকুর যে ফুলে সন্তুষ্ট তাকে সেই ফুল দিয়ে পুজো করুন। বাকিটা বিজেপি দেখে নেবে। রাজ্যের উন্নয়নকে নিয়ে দিলীপবাবু বলেন, রাস্তায় ,লাঠি, বোমা হাতে নিয়ে উন্নয়ন দাঁড়িয়ে থাকে। মনোনয়ন জমার সময় তা দেখা গিয়েছিল। কোনও বিরোধীকে থাকতে দেবেন না। বাংলায় এখন একটাই শিল্প,তা হল বোমা শিল্প। আর তৃণমূলের উন্নয়ন তো রাস্তায় , তাই পশু-পাখিরাও জঙ্গল ছেড়ে উন্নয়ন দেখতে চলে আসছে রাস্তায়।এছাড়াও তিনি বলেন , তৃণমূলকে সমর্থন না করায় সিভিক ভলান্টিয়ারদের চাকরি হারানো প্রসঙ্গও তুলে ধরেন দিলীপবাবু। সিভিক কর্মীদের সেনাবাহিনী বানাতে চাইছে তৃণমূল। আর তা না করলে  চাকরি থেকে বসিয়ে দেওয়া হচ্ছে। চাকরির স্থায়িত্ব নেই। বিজেপি ক্ষমতায় এলে সিভিক কর্মীদের চাকরি স্থায়িত্ব হবে। দিলীপবাবুর আবেদন সাধারণ মানুষের কাছে, আমাদের শক্তি দিন, বাংলা হিরে দিয়ে তৈরী করবো।(এনএ)
Please follow and like us: