জৈষ্ঠেও ভরা মরশুম পাহাড়েমানুষের ঢল

pe 11
শিলিগুড়ি, ২৪ মে : জৈষ্ঠেও ভরা মরশুম পাহাড়ে| পশ্চিমবঙ্গ শুধু নয়, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পর‌্যটকরা এসে ভিড় করছেন পাহাড় সহ সমতল-ডুয়ার্সে| উষ্ণতার হাত থেকে কিছুটা রেহাই পেতেই হয়ত তাদের আশ্রয় পাহাড়ের কোলে| মে মাসের শেষের দিকে এসে পাহাড়ের বিভিন্ন হোটেল, লজ ৱুকিং হয়ে গেছে| পর‌্যটকের ঢল দেখা যাচ্ছে দার্জিলিংয়ে| শুধু পাহাড় নয়, পর‌্যটকেরা ভিড় করছেন ডুয়ার্সের লাটাগুড়ি, গরুমারা সহ বিভিন্ন স্থানে| উল্লেখ্য, প্রতিবছর এই সময়টাতে পর‌্যটকদের ভিড় থাকলেও এবছর সেই ভিড়ের পরিমান কয়েক গুণ বেড়ে গিয়েছে বলে মনে করছেন উত্তরবঙ্গের টু্যরিজম দপ্তরের যুগ্ম পরিচালক সুনীল আগরওয়াল| তিনি বলেন, এবছর পাহাড় সহ তরাই-ডুয়ার্স অঞ্চলে পর‌্যটকের ভিড় নেমেছে| যা পর‌্যটনের ক্ষেত্রে খুবই ভাল দিক| পাহাড়ের প্রায় সমস্ত হোটেল ৱুকিং হয়ে গিয়েছে| জমে উঠেছে পাহাড়ের পর‌্যটন ব্যবসা| শুধু পাহাড় নয়, পর‌্যটকেরা এবছর ভিড় করছেন তরাই এবং ডুয়ার্সের বিভিন্ন অঞ্চলে| প্রতিটি জায়গায় পর‌্যটকদের ভিড়ে জমে উঠেছে ব্যবসা| প্রতিবছর এই সময়টাতে ভিড় বেশি হলেও এবছর তা যেন আরও বেড়ে গিয়েছে| দক্ষিণবঙ্গ সহ গোটা দেশে এখন প্রচন্ড গরম| ৪০ থেকে ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে ঘোরাফিরা করছে তাপপ্রবাহ| তারথেকে পাহাড়, তরাই-ডুয়ার্স অনেকটাই শীতল| সেইজন্য পর‌্যটকেরা বেশি পছন্দ করছেন এই অঞ্চলগুলিকে| মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশ, বিহার থেকে পর‌্যটকেরা ঘাটি গেড়েছে এখানে| এই সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেন সুনীলবাবু| তিনি আরও বলেন, আগামীদিনে পাহাড়, তরাই-ডুয়ার্স পর‌্যটনের মানচিত্রে শুধু দেশে নয়, গোটা পৃথিবীতে পরিচিত হবে| পর‌্যটন ব্যবসা বাড়িয়ে তোলার জন্যও নানান উদ্যোগ গ্রহন করা হচ্ছে| এই ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত মানুষেরা এখন লাভবান| অনেক নতুন নতুন মানুষ এখন এই ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত হতে চাইছেন| কয়েক বছর আগেও এই অঞ্চলে মাত্র কয়েক মাস মানুষের ঢল নামত| এখন কিন্তু মানুষ সারাবছরই এখানে আসছেন| আগে গরমের হাত থেকে অনেকেই সমুদ্র পছন্দ করলেও, এখন অনেকেই পাড়ি দিচ্ছেন পাহাড়ে| এখানকার অপরূপ সৌন্দর‌্যের লুফত উঠাতে পরিবার-পরিজন নিয়ে হাজির হচ্ছেন তারা| ফলে পর‌্যটকের সারাবছরই এখানে আসা যাওয়া পর‌্যটন বিকাশে সহায়কা হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন উত্তরবঙ্গের টু্যরিজম দপ্তরের যুগ্ম পরিচালক সুনীল আগরওয়াল|

Please follow and like us: